Select Page

শিক্ষা যিনি দান করেন তিনি আলোকিত মানুষ, কাজটি তার জীবনকে আলোকিত করে

যারা আমাকে সাহায্য করতে না করে দিয়েছিল আমি তাদের প্রতি কৃতজ্ঞ, কারন তাদের ‘না’ এর জন্যই আজ আমি নিজের কাজ নিজে করতে শিখেছি

অ্যালবার্ট আইনস্টাইন

BUTTON

“ জেগে ওঠো, সচেতন হও এবং লক্ষ্যে না পৌঁছা পর্যন্ত থেমো না ”

স্বপ্ন সেটা নয় যেটা মানুষ, ঘুমিয়ে ঘুমিয়ে দেখে; স্বপ্ন সেটাই যেটা পূরনের প্রত্যাশা, মানুষকে ঘুমাতে দেয় না।

এ পি জে আব্দুল কালাম

BUTTON

আমাদের বিদ্যালয়ের বৈশিষ্ট

সুধুমাত্র A+ পাওয়া নয়। একজন সফল, নৈতিক ও মানবিক চেতনায় উজ্জীবিত মানুষ গড়াই আমাদের একমাত্র উদ্দেশ্য।

আভিজ্ঞ শিক্ষকমণ্ডলী

কর্তৃপক্ষ সকল সময় শিক্ষকদের সৃজনশীল কর্মকান্ডের মধ্যে সম্পৃক্ত রাখার প্রয়াস চালাচ্ছেন। তাই সর্বদা উদ্ভাবনী চিন্তার মাধ্যমে নব নব বাতায়ন খোলে দিচ্ছেন।

সুপরিকল্পিত পাঠদান

কর্তৃপক্ষ প্রথম থেকেই এই স্কুল বা কলেজের শিক্ষার্থীদের যাতে প্রাইভেট শিক্ষকদের দ্বারস্থ হতে না হয়, সেভাবেই অতিরিক্ত সময় ও সুযোগ-সুবিধা দিয়ে পরিপূর্ণ যত্নের সাথে পড়াচ্ছেন।

সকল শিক্ষার্থীর প্রতি মনোযোগ

সকল শিক্ষার্থীর লেখাপড়া ধারন ক্ষমতা সমান নয়। তাই সবাই যেন পড়া ভাল ভাবে বুঝতে পারে সেই জন্য বিশেষ মনোযোগ দেয়া হয়।

সাংস্কৃতিক বিকাশ

অপসংস্কৃতির ধারক নৈরাজ্য সৃষ্টিকারী কিছু মানুষের বদ্ধ মানসিকতা সামাজিক স্থিতিশীলতা বিনষ্ট করছে। সুস্থ সংস্কৃতি চর্চার মাধ্যমেই সামাজিক নৈরাজ্য দূর করা সম্ভব।

প্রধান শিক্ষক ও স্কুল কমিটির সভাপতির বানী

এমনভাবে অধ্যায়ন করবে, যেন তোমার সময়াভাব নেই, তুমি চিরজীবী। এমনভাবে জীবনযাত্রা নির্বাহ করবে, যেন মনে হয় তুমি আগামীকালই মারা যাবে।

Member name

মহাত্মা গান্ধী

মনের বাসনাকে দূরীভূত করা উচিত নয়। এই বাসনাগুলোকে গানের গুঞ্জনের মতো কাজে লাগানো উচিত।

Member name

চাণক্য

এক নজরে আমাদের বিদ্যালয়

সংক্ষিপ্ত ইতিহাস

১৯৬১ সালে স্কুলটিরে প্রতিষ্ঠালগ্নে প্রথম শ্রেণি থেকে অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত চালু হয়েছিল। তখন মোট ছাত্র সংখ্যা ছিল ১৫৭ জন। পরবর্তীতে ১৯৬২ সাল থেকে নবম-দশম শ্রেণি চালু হয় এবং ১৯৬৪ সালে এ বিদ্যালয়ের ছাত্ররা প্রথম এসএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে। সে বছর মোট ৩৩ জন শিক্ষার্থীর মধ্যে ১৩ জন প্রথম বিভাগে, ১৯ জন দ্বিতীয় বিভাগে এবং ০১ জন তৃতীয় বিভাগে উত্তীর্ণ হয়। এই প্রথম বছরেই ৫টি লেটারসহ ঢাকা বোর্ডে কৃতিত্বের সাথে ৪র্থ স্থান অধিকার করেন দিলীপ কুমার সরকার।

প্রাতিষ্ঠানিক আবকাঠামো

১৯৯১ সালে প্রভাতি ও দিবা শাখা চালু করা হয়। প্রথম শ্রেণি থেকে ১০ম শ্রেণি পর্যন্ত মোট ৪০টি সেকশন আছে। প্রতি সেকশনের নাম দেওয়া হয়েছেঃ ক, খ, গ, ঘ। প্রভাতি শাখার নাম দেওয়া হয়েছে ক, খ। দিবা শাখার নাম দেওয়া হয়েছে গ, ঘ। একাদশ ও দ্বাদশ শ্রেণিতে বিজ্ঞান ও ব্যবসায় শিক্ষা ২+২=৪টি সেকশনে ভাগ করা হয়েছে। সর্বমোট ৪৪টি সেকশন আছে। (২০০৭ সালে বিশেষ নির্দেশে প্রথম শ্রেণিতে দিবা ও প্রভাতি অতিরিক্ত শাখায় ২টি সেকশনে (ঙ, চ) ছাত্র ভর্তি করা হয়।

শিক্ষার্থীর সংক্ষিপ্ত ফলাফল বিবরণ

২০০৭ সালে বিজ্ঞান ও বাণিজ্য শাখা নিয়ে একাদশ শ্রেণি চালু করা হয়। ২০০৮-২০০৯ শিক্ষাবর্ষে দ্বাদশ শ্রেণি চালু করা হয়। ২০০৯ সালে প্রথম এইচ.এস.সি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে এবং ঐ বছর প্রথম সন্তোষজনক ফলাফল অর্জন করে। ১৫১ জনের ছাত্রের মধ্য ১৪২ জন উত্তীর্ণ হয় এবং ১০টি জিপিএ-৫ সহ পাশের হার ছিল ৯৪.০৪।

আমাদের পথচলা

এই ঐতিহ্যবাহী বিদ্যালয়ের বিভিন্ন কর্মকান্ড এত স্বল্প পরিসরে তুলে ধরা সম্ভব নয়। ৫২ বছর আগে যে বিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল তা অনেক বাধা বিপত্তির পথ অতিক্রম করে আজকের এই গৌরবদীপ্ত অবস্থানে এসে পৌছেছে। এর অগ্রযাত্রা অপ্রতিরোধ্য। এ দীর্ঘ পথ পরিক্রমায় যে সকল সম্মানিত প্রধানশিক্ষক, সহকারী প্রধানশিক্ষক, সহকারী শিক্ষক, অফিস সহকারী ও এমএলএসএস এই বিদ্যালয়ের গৌরব বৃদ্ধির জন্য নিরলস শ্রম দিয়েছেন এবং এখনো দিচ্ছেন, তাদের কাছে বিদ্যালয়ের প্রতিটি শিক্ষার্থী ঋণী হয়ে আছে। এর অগ্রযাত্রা আরো গৌরবদীপ্ত হোক, দেশ-দেশান্তরে এর সুনাম আরো বৃদ্ধি হোক এটাই আমাদের একমাত্র কামনা। মহান সৃষ্টিকর্তা বিদ্যালয়ের এ চলার পথকে আরো গৌরবোজ্জ্বল করুন।

Website name

List of tags

Website name

List of tags

Website name

List of tags

Website name

List of tags

Website name

List of tags

Website name

List of tags

সম্মানিত শিক্ষক মণ্ডলী

Member one

Job Title

19 20

Member two

Job Title

19 20

Member three

Job Title

19 20

Member four

Job Title

19 20

ছবির সংগ্রহশালা

গুরুত্বপূর্ণ তথ্য সমূহ

২০১৫-২০১৬ শিক্ষাবর্ষে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির নিয়মাবলী

রকারি নীতিমালা অনুযায়ী অনলাইনে আবেদনের ক্ষেত্রে ১৫০/- (একশত পঞ্চাশ) টাকা আবেদন ফি টেলিটকের মাধ্যমে জমা সাপেক্ষে সর্বোচ্চ ০৫ (পাঁচ)টি কলেজ/সমমানের প্রতিষ্ঠানের পছন্দক্রম দিতে পারবে।

ফিস ও পেমেন্টস্‌

কোন ক্লাসে একবার ফেল করে সেই ক্লাসে আবার পড়তে চাইলে পরবর্তী বছরের পহেলা জানুয়ারী শ্রেণি শিক্ষকের মাধ্যমে প্রধান শিক্ষকের নিকট আবেদন পত্র জমা দিতে হবে এবং জানুয়ারি মাসের বেতন ও অন্যান্য পাওনাদি পরিশোধ করতে হবে

ট্রান্সফার পদ্ধতি

পরবর্তী বছরের পহেলা জানুয়ারী শ্রেণি শিক্ষকের মাধ্যমে প্রধান শিক্ষকের নিকট আবেদন পত্র জমা দিতে হবে এবং জানুয়ারি মাসের বেতন ও অন্যান্য পাওনাদি পরিশোধ করতে হবে।

নিউজ এন্ড ইভেন্টস

১০ থেকে ১৫ অক্টোবর ২০১৫ তারিখ থেকে বিএএফ শাহীন কলেজ ঢাকার হকি টার্ফে অনুষ্ঠিত হচ্ছে ১ম আন্তঃশাহীন হকি প্রতিযোগিতা-২০১৫।

লাইব্রেরী

বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার পর প্রধান ভবনের দোতলায় একটি পাঠাগার স্থাপন করা হয়। এটি বর্তমানে নতুন ভবনের দোতলায় স্থানান্তর করা হয়েছে। এর জন্য প্রায় প্রতি বছরই কিছু বই কেনা হয়ে থাকে।

প্রকাশনা

ছাত্র ও শিক্ষকদের বিভিন্ন লেখা নিয়ে বৃহৎ কলেবরে ‘অনুশীলন’ নামে বিদ্যালয় বার্ষিকী প্রকাশিত হয়। কিছু সীমাবদ্ধতার কারণে কখনো কখনো কয়েকটি শিক্ষাবর্ষের লেখা একত্রে করে তা পরবর্তী শিক্ষাবর্ষে প্রকাশিত হয়ে থাকে।

পোশাকরীতি

একীভূত শিক্ষার লক্ষ্যে সকল ছাত্রের জন্য অভিন্ন পরিধেয় চালু রয়েছে। সাদা শার্ট, নেভী ব্লু প্যান্ট, সাদা কেডস, সাদা মোজা, ১ ইঞ্চি কালো বেল্ট। প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির শিক্ষার্থীদের জন্য নেভী ব্লু হাফ প্যান্ট। অন্য সবার জন্য ফুল প্যান্ট।

পাঠ পরিকল্পনা

দাঁড়বিহীন নৌকার পথচলা যেমন গন্তব্যহীন, তেমনি শ্রেণীকক্ষে পাঠপরিকল্পনাবিহীন পাঠদান অর্থহীন। শ্রেণীকক্ষে সঠিক পাঠদানের পূর্বশর্ত হচ্ছে নিয়মিত পাঠপরিকল্পনা তৈরি করে সেই অনুযায়ী পাঠদান।

অভিভাবকের জন্য নির্দেশিকা

প্রতিদিন আপনার ছেলে/পোষ্য বিদ্যালয় থেকে বাসার ফেরার পর সেদিন শ্রেণিতে শিক্ষক কোন পিরিয়ডে কি বিষয়ে পড়িয়েছেন তা দেখে ছেলের উপস্থিতি ও পাঠ্যসমূহ সম্বন্ধে নিশ্চিত হউন.

মনে রাখতে হবে অভিভাবক ও শিক্ষক/শিক্ষিকার সম্মিলিত প্রয়াসের ফলে ছাত্রের পাঠোন্নতি ও সুন্দর চরিত্র গঠন সম্ভব।